সাভারে হোম কোয়ারেন্টাইন না মেনে যত্রতত্র ঘুরাফেরা করায় দুই প্রবাসীকে অর্থদন্ড।।

সাভারে হোম কোয়ারেন্টাইন না মেনে যত্রতত্র ঘুরাফেরা করায় দুই প্রবাসীকে অর্থদন্ড।।

নিউজ হাঁট ডেস্ক :

সাভারে হোম কোয়ারেন্টাইন না মেনে যত্রতত্র ঘুরাফেরা করায় দুই প্রবাসীকে ২৭ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যামা আদালত। এ সময় তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইন মেনে চলার জন্য সর্তক করে দেয়া হয়। রবিবার  (২৩মার্চ )  বিকেলে সাভারের বনগাঁও এবং পৌর এলাকার গেন্ডা মহল্লায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পারভেজুর রহমান জানান, হোম কোরারেন্টাইন না মেনেই যত্রতত্র ঘোরাঘুরি করায় রবিবার বিকেলে উপজেলার বনগাঁও ইউনিয়নের সাধাপুর মাঝিপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে মামুন কায়সার (৪০) নামে দুবাই ফেরত এক প্রবাসীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গত সপ্তাহে ওই প্রবাসী হোম কোরারেন্টাইন না মেনেই শুশুড়বাড়ি ও আশোপাশের আত্মীয় স্বজনের বাসাবাড়িসহ যত্রতত্র ঘোরাঘুরি করতে থাকেন। তাই তাকে জরিমানার পাশাপাশি হোম কোরারেন্টান মেনে চলার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

এছাড়া সাভার পৌর এলাকার গেন্ডা মহল্লায় হোম কোয়ারেন্টাইন না মেনে বাহিরে চলা ফেরা করার অভিযোগে আয়ারল্যান্ড প্রবাসী মাসুম খাঁনকে (৩৮) সাত হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

এ বিষয়ে সাভার উপজেলা রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যজিষ্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ জানান, কয়েকদিন আগে আয়ারল্যান্ড থেকে সাভারের গেন্ডা এলাকায় নিজ বাড়িতে ফেরেন মাসুম খাঁন। তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হলেও সে তা না মেনে বিভিন্ন স্থানে ঘোরা ফেরা করছিলেন। পরে খবর পেয়ে আজ তার বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে নগদ সাত হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা করা হয় ও তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়।

সাভার উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সায়েমুল হুদা জানান, নতুন করে আজ  সাভারে ১০ জন ও ধামরাইতে আরও ১০ জনকে হোম কোয়ারাইন্টানে পাঠানো হয়েছে। তারা যথাযথভাবে কোরারাইন্টাইন মানছেন কিনা তাও কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এ নিয়ে সাভার, আশুলিয়া ও ধামরাইয়ে মোট হোম কোয়ারাইন্টানে পাঠানো হয়েছে ৭১ জনকে। এছাড়া শরীরে কোন রকম করোনা লক্ষন পরিলক্ষিত না হওয়ায়  হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ২জনকে ১৪দিন পর ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

সাভার মডেল থানার (ওসি) এএফএম সায়েদ জানান পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাভারে সব ধরনের হোটেল রেস্তোঁরা বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়া করোনা

 

সাভার

২৩.০৩.২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *