ভিটিসি এর মাধ্যমে গণভবন থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জাতীয় পতাকা প্রদান অনুষ্ঠান উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ভিটিসি এর মাধ্যমে গণভবন থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জাতীয় পতাকা প্রদান অনুষ্ঠান উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

 

 নিউজ হাঁট ডেস্ক: 

করোনার দ্বিতীয় আঘাত আসতে পারে। সেই বিষয়টি মাথায় রেখে সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে মিতব্যয়ী হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার (১১ অক্টোবর) সকালে গণভবন থেকে ভিটিসি (ভিডিও টেলি কনফারেন্স) এর মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে  প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নয়টি ইউনিট ও একটি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানকে ভিটিসি এর মাধ্যমে জাতীয় পতাকা (ন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড) প্রদান করেন এবং অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, অর্থ খরচের ব্যাপারে সবাইকে একটু সচেতন থাকতে হবে। কারণ করোনাভাইরাস আবার যদি ব্যাপক হারে দেখা দেয়, তাহলে প্রচুর অর্থের প্রয়োজন হবে। মানুষকে আবার অর্থ সহায়তা দিতে হবে, তাদের চিকিৎসা করাতে হবে। সেদিকে লক্ষ্য রেখে আমাদের মিতব্যয়ী হতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বব্যাপী একটি খাদ্য মন্দা দেখা দিয়েছে। অনেক উন্নত দেশও হিমশিম খাচ্ছে। কিন্তু বাংলাদেশে আমরা ঠিক সঠিক সময়ে যথাযথ পদক্ষেপ নিয়েছিলাম বলে আজকে আমাদের সেই সমস্যাটা দেখা দিচ্ছে না।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী তার মূল্যবান বক্তব্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া এ সেনাবাহিনীকে একটি প্রতিষ্ঠিত, সুশৃঙ্খল ও আধুনিক সাজ সজ্জায় সজ্জিত বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। দেশ গঠন, বিভিন্ন দুর্যোগ মোকাবেলা ও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে সেনাবাহিনীর আত্মত্যাগ ও অসামান্য অবদানের কথা স্মরণ করেন। এছাড়া ন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড প্রাপ্ত নয়টি ইউনিট ও একটি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান তাদের গৌরবময় ঐতিহ্যের ধারা অব্যাহত রেখে ক্রমান্বয়ে এগিয়ে যাবে এবং সেনাবাহিনীর চৌকস ইউনিট হিসেবে নিজেদের অবস্থান সুসংহত ও সুদৃঢ় করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ ইউনিট প্রধানদের জাতীয় পতাকা (ন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড) প্রদান করেন। ইউনিট গুলো হলো- ১,৩,৬,৮ ইঞ্জিনিয়ার ব্যাটলিয়ান, এডহক ১১ বীর (মেকানাইজড), ১২,১৩,১৫ বীর (সাপোর্ট ব্যাটলিয়ান), ৫৯ ইস্ট বেংগল রেজিমেন্ট (সাপোর্ট ব্যাটলিয়ান)।

এ সময় দুর্যোগ ব্যবস্থপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি, সাভার সেনাবাহিনীর নবম পদাতিক ডিভিশনের জিওসি সাইফুল আবেদীনসহ সেনাবাহিনীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

সাভার

১২.১০.২০২০

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *