দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান এমপি’র নেতৃত্বে ও সাভার উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সরকারি খাল উদ্ধার অভিযান 

সাভারে সরকারি খাল উদ্ধার অভিযান 

 

নিউজ হাঁট ডেস্ক:

সাভারে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে খাল দখল ও দূষনের বিরুদ্ধে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। শনিবার (১২ জুন) দুপুরে সাভার পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড কাতলাপুর ও দরিয়াপুর এলাকার বৈরাগীর খাল উদ্ধারে এই অভিযান পরিচালিত হয়।

এদিন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান এমপি’র নেতৃত্বে এবং সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজীব, সাভার পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল গণি সহ সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাজহারুল ইসলাম সমন্বয়ে উপজেলা প্রশাসন খালের অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে।

দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান জানান, আমরা সাভার উপজেলা চেয়ারম্যান, পৌর মেয়র, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে বৈরাগীর খাল পুনরুদ্ধারে কার্যক্রম চালাচ্ছি। সাভার পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের পানি নিষ্কাশনের ক্ষেত্রে এই বৈরাগীর খালের গুরুত্ব অপরিসীম। এই এলাকার পানি এই খালটি দিয়ে বংশী নদীতে গিয়ে পড়ে। আমি নিজেও বিগত ৪০ বছর ধরে দেখছি যে, এই খাল দিয়ে পানি বংশী নদীতে প্রবাহিত হয়। এই খালটি এত বড় ছিলো যে, একসময় এই খাল দিয়ে বড় বড় মালবাহী নৌকা চলাচল করতো, এখানে ভিড়তো। কিন্তু ক্রমাগত দখলের কারণে সেই বৈরাগীর খাল শীর্ণ এক নালায় পরিণত হয়েছে।

সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব জানান, সাভারে প্রায় হাজারের মতো মানুষ উপজেলার বিভিন্ন প্রাকৃতিক খালগুলো দখল করে একপ্রকার অবিবেচকের মতো বাড়ি-ঘর নির্মাণ করেছে। কেউ কেউ আবার খালকে ‘আন্ডারগ্রাউন্ড ড্রেইন’ বানিয়ে খালের প্রবাহ রুদ্ধ করেছে। আমি আগেও বলেছি, এই ধরণের অবৈধ কাজ যারা করেছে, আমি মনে করি তারা দেশদ্রোহী, রাষ্ট্রদ্রোহী এবং তাদের মধ্যে বিন্দুমাত্র দেশপ্রেম নাই। আমরা এ বিষয়ে একটা ‘টিম ওয়ার্ক’ চালিয়ে যাচ্ছি। আমাদের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান সাহেবের নেতৃত্বে এখানে আমাদের ‘লজিষ্টিক সাপোর্ট’ দিচ্ছেন আমাদের পৌর মেয়র মহোদয়। এছাড়াও, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাজহারুল ইসলাম, সাভার রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ এবং স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ সকল সাধারণ মানুষের স্বতঃস্ফুর্ত উপস্থিতিতে আমরা এই বৈরাগীর খাল পুনরুদ্ধারে কাজ করছি।

সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাজহারুল ইসলাম জানান, ঈদের একদিন পরেই আমাদের মাননীয় ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান স্যারের নেতৃত্বে সাভার উপজেলা চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব এর উপস্থিতিতে সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণে পৌরসভার বেদখল হয়ে যাওয়া একটি খাল আমরা পুনরুদ্ধার করেছিলাম। আজ আমাদের এই টিমের এটি দ্বিতীয় অভিযান। এর মাধ্যমে এই ৬নং ওয়ার্ড এলাকা এবং সাভার পৌরসভার মানুষের মধ্যে যে জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে, তার দু’টি সুফল আমরা পাবো আশাকরি। ভবিষ্যতে কেউ আর খাল অবৈধভাবে দখল করতে যাবে না এবং এখন যারা অবৈধ দখলে আছে তাদেরকে উচ্ছেদ করে দিয়ে আগের অবস্থায় খালকে ফিরিয়ে আনবো আমরা। আইনের কথা যেটি আমাদের মাননীয় উপজেলা চেয়ারম্যান বললেন যে, জমির শ্রেণি বা ‘ন্যাচার’ পরিবর্তন করা যাবে না। খাল-বিল, জলাশয় ও প্রাকৃতিক জলাধার যেভাবে আছে, সেভাবেই সংরক্ষণ করতে আমাদের আইনী কার্যক্রম চালাতে হবে। এই কাজটিতে আমরা নাগরিকদের সহায়তা চাই। রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ সকলের সহযোগিতা অব্যাহত থাকলে আমরা একাজে সফল হবো ইনশাআল্লাহ।

কাতলাপুর ফুলবাগান এলাকায় বায়তুল মামুর জামে মসজিদের সামনে বৈরাগীর খালের বেদখল হয়ে যাওয়া একটি অংশে দখলদারদের অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়ে খাল পুনরুদ্ধার করা হয়।

এসময় সেখানে উপিস্থিত ছিলেন,  সাভার পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল গণি, সাভার রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ, সাভার পৌর যুবলীগ নেতা মাজহারুল ইসলাম রুবেল, সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ সফিউল্লাহ সুজন, উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য রাজু আহমেদ, সাভার উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।

সাভার

১২.০৬.২০২১

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *