ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অষ্টাদশ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি।।

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অষ্টাদশ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি।।

 নিউজ হাঁট ডেস্ক :

 জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্ম শতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১০০টি ঘুড়ি উড়িয়ে চার দিনব্যাপী ‘১৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উৎসব উদযাপনের শুভ উদ্বোধন করলো ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।বুধবার বিকেলে (২২ জানুয়ারি ২০২০)  সাভারের আশুলিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রতিষ্ঠা বর্ষিকীর উদ্বোধন করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান এমপি। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মাহবুব উল হক মজুমদার, প্রকৌশল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এম শামসুল আলম, স্থায়ী ক্যাম্পাসের ডিন অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল সহ শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও আমন্ত্রিত অতিথিরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

৪দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের প্রথম দিনে শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদের মুখাকৃতিসহ বিভিন্ন ধরনের ১০০ ঘুড়ি উড়িয়ে উৎসবের শুভ উদ্বোধন করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান এমপি।

১৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর বর্ণাঢ্য আয়োজনের রয়েছে বৃক্ষরোপন, বনভোজন, পিঠা উৎসব, প্রদর্শনী, সেলিব্রেটি শো, খেলাধূলা, ফান ইভেন্টস, সাইকেল র্যালী, মানবলোগো ইত্যাদি। অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসকে সাজানো হয় বর্নিল সাজে।

শিক্ষার হার বাড়ানোর জন্য বর্তমান সরকার নানা উদ্যোগ হাতে নিয়েছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি।

তিনি আরো বলেন, বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় গুলো সরকারের সহয়তা নিয়ে শিক্ষাখাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। শিক্ষা নিয়ে সরকারের অনেক চিন্তা ভাবনা রয়েছে। এজন্য দেশে আরও বিশ্ববিদ্যালয় করা হচ্ছে। বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সরকার উৎসাহ দিচ্ছে যেন তারা শিক্ষার মান আরও উন্নয়ন করে।

এসময় শিক্ষা বিস্তারে সরকারের সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করার জন্য ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়কে ধন্যবাদ জানান প্রতিমন্ত্রী। সময় তিনি ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাসের ভূয়সী প্রশংসা করেন।  নয়নাভিরাম এই ক্যাম্পাস শিক্ষার্থীদেরকে উদ্ভাবনী মেধাকে বিকশিত করছে।

সভাপতির বক্তব্যে ড. মো. সবুর খান বলেন, নিজের ক্যারিয়ারের উন্নয়নের জন্য নিজের দক্ষতা বাড়ানোর বিকল্প নেই। তরুণদেরকে তাই ছাত্রাবস্থাতেই পড়াশোনার পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয়ে নিজের দক্ষতা তৈরি করতে হবে। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি শিক্ষার্থীদের দক্ষতা উন্নয়নে অসংখ্য কাজ করে থাকে। উদাহরণ হিসেবে তিনি আর্ট অব লিভিং, এমপ্লয়াবিলিটি ৩৬০ ডিগ্রি, ওয়ান স্টুডেন্ট ওয়ান ল্যাপটপ ইত্যাদির কথা বলেন।

 ড. মো. সবুর খান বলেন, শিক্ষার্থীরা যাতে নিজের দক্ষতা বৃদ্ধি উজ্জ্বল ক্যারিয়ার গড়তে পারে সেই উদ্দেশ্যেই ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের মাঝে পর্যন্ত ৪০ হাজার ল্যাপটপ বিনামূল্যে বিতরণ করেছে। তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমরা যাতে চাকরি না খুঁজে চাকরি দিতে পারো সেই লক্ষ্যে এসব ল্যাপটপ কাজে লাগিয়ে তোমরা উদ্যোক্তা হও।

এসময় তিনি ইনোভেশন অ্যান্ড এন্ট্রাপ্রেনারশিপ বিভাগ, ড্যাফোডিল বিজনেস ইনকিউবেটর, বাংলাদেশ ভেঞ্চার ক্যাপিটাল লিমিটেড, গ্লোবাল এন্ট্রাপ্রেনারশিপ ইউক আয়োজন, ইন্ডাস্ট্রি একাডেমিয়া লেকচার সিরিজ, গ্লোবাল মানি উইক আয়োজন, গেট ইন দ্যা রিং, হাল্ট প্রাইজ, টেডএক্স আয়োজনসহ ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন উদ্যোগের কথা উল্লেখ করেন যা তরুণদেরকে উদ্যোক্তা হতে আগ্রহী করছে বলে মন্তব্য করেন ড. মো. সবুর খান।

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি আশুলিয়ায় ১৫০ একর জায়গার উপর সর্বাধূনিক সুবিধা সম্বলিত আন্তর্জাতিক মানের প্রযুক্তি নির্ভর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছেলে মেয়েদের পৃথক আবাসিক সুবিধাসহ শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে করেছে ২০১১ সাল থেকে। এখানে কোলাহলমুক্ত ছায়া সুনিবিড় শান্ত সবুজ পরিবেশে আধূনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত খেলার মাঠ, অডিটরিয়াম ছেলে মেয়েদের পৃথক আবাসিক হল, সুইমিং পুল, জিমনেশিয়াম, বাস্কেটবল গ্রাউন্ড, টেনিস কোর্ট সহ একাডেমিক প্রশাসনিক ভবন রয়েছে।

সাভার

২৪.০১.২০২০

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *